25:44

أَمْ تَحْسَبُ أَنَّ أَكْثَرَهُمْ يَسْمَعُونَ أَوْ يَعْقِلُونَ ۚ إِنْ هُمْ إِلَّا كَالْأَنْعَامِ ۖ بَلْ هُمْ أَضَلُّ سَبِيلًا

Sahih International

Or do you think that most of them hear or reason? They are not except like livestock. Rather, they are [even] more astray in [their] way.

Bangla

আপনি কি মনে করেন যে, তাদের অধিকাংশ শোনে অথবা বোঝে ? তারা তো চতুস্পদ জন্তুর মত; বরং আরও পথভ্রান্ত.
========================================================

ও মুসলিম, তুমি তো বলো, “এতো মানুষ কি ভুল করতে পারে?” “সবার যেই অবস্থা হবে আমার ও একই অবস্থা” “সবার সঙ্গে থাকাই ভালো” আর তো তোমার গনতন্ত্র আছেই যেখানে বেশীর ভাগ মানুষের কথাতেই, চিন্তাতেই এবং ধারনাতেই তোমার ‘জনপ্রতিনিধি’ নির্বাচন হয়। অথচ তুমি যে আল্লাহকে বিশ্বাস করো, সে বলে ,

“অধিকাংশ মানুষই হচ্ছে জন্তুর চাইতে অধম”

তুমি কি একটু চিন্তা করো না? চিন্তা করলেই তো তুমি উদাহরণগুলি পাও। তুমিতো মুসলিম, দুনিয়াতে কতো পারসেন্ট মুসলিম? ১৫-২০%, তাহলে বেশীরভাগ মানুষ কি? তারা তো তোমার আল্লাহকেই চিনে না। এরপর আসো। তোমার জানা মতে কতো পারসেন্ট মুসলিম সলাত পড়ে পাঁচ ওয়াক্ত? বেশীরভাগ না অল্পভাগ? কতো পারসেন্ট মুসলিম ফজরে মসজিদে আসে? বেশীরভাগ না অল্পভাগ?
রাসুলুল্লাহ সল্লিল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলছে, এক একজন নাবী আসবে কেয়ামতে তাদের পেছনে অনুসারী থাকবে না, কারো একজন, কারো দুইজন, কারো তিনজন। তাহলে একজন নাবী যে আল্লাহ একটা কওমের মধ্যে, একটা অঞ্চলে পাঠাইলো, কতো মানুষ ছিলো সেখানে? তাহলে বেশীরভাগ মানুষই জান্নাত হাসিল করতে পারলো না তো। আর যে জান্নাত পাইলো না, সে কি করে গরু ছাগলের চাইতে, নর্দমার কীটের চাইতে বড় হতে পারে। তোমার আল্লাহ বলতেছে তারা জন্তু জানোয়ারের চাইতে অধম।

আল্লাহ বলতেছে, তুমি যদি অধিকাংশ লোক কে অনুসরন করো তাহলে তারা তোমাকে বিপথে নিয়ে যাবে, আর বিপথকে যদি তুমি বাংলায় বিশ্লেষণ করো, তার মানে হলো জাহান্নাম।